আজ সোমবার | ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল
বিজ্ঞপ্তি
  • সারাদেশে সংবাদদাতা ও বিঞ্জাপন প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। ই-মেইল করুন- hrd.nobojugantor@gmail.com
সাহিত্য পাতা

কেউ থাকুক : সাদমান সাঈদী সামিন

আমি দুদিন ফেসবুক আইডি বন্ধ করে দিলে কেউ খোঁজ নেবেনা আমি জানি। কারোর পোস্টে একটা রিয়্যাক্ট কম পড়লে তাদের কিছু যায় আসবেনা, সেটাও জানি। এটাও জানি যে আমার থাকা বা না থাকা নিয়ে আমি ছাড়া বিশেষ কারোর মাথা ব্যাথা নেই। আর এসব নিয়ে আমার কোনোরকম অসুবিধাও নেই।

না আমি ইন্ট্রোভার্ট, না একস্ট্রোভার্ট, এমনকি এম্বিও নয়, আসলে আমি আমার মতোই। আমি নিজের মতোই করি, নিজের মতোই ভাবি, তাতে কে কি ভাবলো যায় আসেনা। আমি খুব ব্রিলিয়ান্ট স্টুডেন্ট নই, আমি নাচতে, গাইতে, আঁকতে, লিখতেও পারিনা, তবে যেগুলো পারি মন দিয়ে করি।

Advertisements

আমার দুটো দুনিয়া, একটা বাড়িতে, একটা ফোনের ভিতর। বাড়ির কয়েকজনের সাথে সম্পর্কের চিড় কখনও ধরেনি, ঠিক শুরুতে যেমন ছিল আজও তাই। কিন্তু অন্য দুনিয়ায় বিভিন্ন সময়ে, বিভিন্ন ভাবে, বিভিন্ন রকমের মানুষের সাথে আলাপ হয়েছে, প্রথম প্রথম বেশ ভালোই লাগে, দু একটা কথা ছাড়া বিশেষ আমল আমিও দিইনা, কিন্তু এদের মধ্যেও কেউ কেউ খুব কম সময়ে ভীষণ আপন হয়ে যায়। একদিন কথা না বললেও ফাঁকা ফাঁকা লাগে এতটা কাছেরও হয়ে যায় আর ঠিক তারপরেই তারা হারিয়ে যায়। একভাবে কেউ থেকে যায়নি।

আমার শরীর খারাপ হলে বাইরের কেউ নেই খোঁজ নেওয়ার, আমার এমন কেউ নেই যে আমার কথায় রাগ করবে, এমন কেউ নেই যে সে চাইবে আমি তার অভিমান ভাঙাই, এমন কেউও নেই যাকে দুম দাম করে ফোন করে বিরক্ত করতে পারবো, এমন কেউও নেই যখন মন খারাপ হয় ভীষন, তার কাঁধে মাথা রেখে কাঁদব, এমন কেউ নেই যে বুকে টেনে মাথায় একটা ভরসার হাত রাখবে। এমন কেউ নেই যাকে নিয়ে খোলা আকাশের নিচে তারা ভর্তি আকাশ দেখবো, আমার নেই এমন কেউ যে আমায় পাহাড় নিয়ে যাবে, এমন কেউ নেই যার পাশে বসে সূর্য ডুবতে দেখবো। আর আমার কেউ নেই ঠিকই কিন্তু আমি অভ্যস্ত।

Advertisements

আমার যখন মাস শেষে ব্যাগে টাকা শেষ হয়ে যায় আর আমার জন্মদিনে কিছু কিনতে পারিনা, অথবা আমি যখন উৎসব গুলোয় একা একা ঘরে বসে কাটাই, বা আমি যখন আমার জন্মদিনে কয়েকজনকে থ্যাঙ্কু লিখে পাঠানোর পর গুম মেরে বসে থাকি, ঘরের অসুবিধা থাকলে, ঘুরতে যাওয়ার ইচ্ছা হলেও সাথে কেউ না থাকলে, বা ফেসবুকে বন্ধুদের পিকনিকের ছবি, ঘুরতে যাওয়ার ছবি গুলোয় লাইক দিতে দিতে একটা অন্যরকম কষ্ট হয়, আর সেগুলো যখন কাউকে শেয়ার করার থাকেনা তখন দম বন্ধ হয়ে আমার। এগুলো আমার সব দরকার নেই, কিন্তু এগুলো শোনার তো কেউ থাক…

আমি একাই আমার খেয়াল রাখতে পারি, কিছু হলে মানিয়ে নিতে জানি, দরকারে ডায়েরি লিখে ছিঁড়েও ফেলি তবু আমি একা থাকতে শিখে গেছি। কিন্তু জীবনের একটা সময়ে, কিছু বিশেষ মুহূর্তে একজন বিশেষ বন্ধুর, বন্ধুর মতো বন্ধু দরকার হয়ে পরে, আর সেটার অভাব আমি ভীষন ভাবে অনুভব করি। এমন নয় যে আমার কোনও বন্ধু বান্ধব নেই, কিন্তু সেই কাছের, একদম কাছের, যার কাছে সবকিছু খুলে বলা যায়, যার সাথে দেখা করতে হলে পারমিশন নিতে হয়না, যে বাড়িতে এলে বিছানার চাদর ঠিক করতে হয়না, যার সাথে রাত তিনটেও ফোনে কথা বলা যায়, যাকে ভালোবাসা যায়, যাকে রাগানো যায়, যার উপর অভিমান করা যায়, অথচ যার কাছে লজ্জা পেতে হয়না, যার কাছে কথা লোকাতে হয়না চোখ দেখেই বুঝে যায়, কথা বলার আগেই সবটুকু জেনে যায়, যার আঘাত লাগলে নিজেরও ভীষণ কষ্ট হয়, যাকে হারালে সবটুকু হারিয়ে যায়, এমন কাউকে খুব দরকার। কেউ থাকুক, কেউ তো থাকুক, যাকে নিজের বলা যায়। মন ভাঙার জন্যেও তো যোগ্য মানুষের প্রয়োজন হয়।

বিষয়

*** 'নব যুগান্তর' সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আপনার ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করে এবং এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ ***

7
খেলাপি ঋণ এক লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে- আপনি কি মনে করেন এই অর্থ উদ্ধারে সরকারের উদ্যোগ যথেষ্ট?

ধন্যবাদ! আপনার মন্তব্যের জন্য।

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন>>>

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close